ভাষা শহীদের স্বজনরাও বোনাস-ভাতা চান

স্বদেশ বিদেশ ডট কম

  • প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১:০৩ পূর্বাহ্ণ

ভাষা শহীদদের স্বজনরা মুক্তিযোদ্ধাদের মতো বোনাস-ভাতা চান। তাদের দাবি মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়মিতভাবে বোনাস-ভাতা দেওয়া হলেও ভাষা শহীদদের ভাতা মেলে বছরে একবার। আর ভাষা শহীদদের স্বজনদের জন্য বরাদ্দ নেই কোনো বোনাস।

ভাষা শহীদ বরকতের ভাতিজা আইন উদ্দিন বরকত জানান, প্রতিবছর একবার তার চাচার নামে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় থেকে মাসিক ১০ হাজার টাকা করে একত্রে ১ লাখ ২০ হাজার ভাতা পান। আর মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ১২ হাজার টাকা করে দেয়া হচ্ছে। শুধু তাই নয় তাদের বছরে কয়েকটি বোনাসও দেয়া হচ্ছে। ভাষা শহীদদের স্বজনদেরও মুক্তিযোদ্ধাদের মতো প্রতিমাসে নিয়মিত ভাতা-বোনাসের দাবি করেন।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের মতো ভাষা শহীদরাও দেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে গেছেন। তারা এ দেশের স্বাধীনতা তথা মুক্তিযুদ্ধের ভিত্তি তৈরি করে গেছেন।

ভাষা শহীদ মো. রফিক উদ্দীন আহম্মেদের ছোট ভাই মো. খোরশেদ আলম জানান, আমার ভাই একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাও। তিনি মাসে ১২ হাজার টাকা করে মুক্তিযোদ্ধা ভাতাসহ দুই ঈদে দুইটি, বাংলা নববর্ষে একটি, ১৬ ডিসেম্বরে একটি করে বোনাস পান। আগে তাদের মাসিক ভাতা ৩ মাস পরপর একত্রে দেয়া হলেও এ বছরের জানুয়ারির ভাতা তিনি ফেব্রুয়ারিতেই তুলতে পেরেছেন। অর্থাৎ তাদের মাসিক ভাতা প্রদান কার্যক্রম নিয়মিতকরণ করা শুরু হয়েছে। পরবর্তীতে ২৬ মার্চেও তাদের বোনাস দেয়া হবে বলে জানতে পেরেছি। খোরশেদ আলম তার বড় ভাই রফিকের সঙ্গে সকল ভাষা শহীদদের জন্যও ভাতা বৃদ্ধি ও বোনাস প্রবর্তনের দাবি জানান।

তিনি বলেন, তারাই আমাদের স্বাধীনতার বীজ বপন করে গেছেন। যার ফল ফলেছে মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের মধ্য দিয়ে। তাই তাদের বিষয়ে সরকারের ভাবা দরকার।

এছাড়া ভাষা শহীদ জব্বারের ছেলে নুরুল ইসলাম বাদল অভিযোগ করে বলেন, ভাষা শহীদদের স্মরণে বাংলা একাডেমি সৃষ্টি হয়েছে। সেখানে প্রতিবছর ফেব্রুয়ারিতে বইমেলাসহ নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হলেও বাংলা একাডেমির পক্ষ থেকে ভাষা শহীদ স্বজনদের কোনো দাওয়াত এবং খবর রাখা হয় না।

খবর : বাংলাদেশ জার্নাল

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

এই সম্পর্কিত আরও খবর...