আইএইএ-এর সঙ্গে সাময়িক সমঝোতায় পৌঁছেছে ইরান

স্বদেশ বিদেশ ডট কম

  • প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১:৫৭ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা (আইএইএ)-এর সঙ্গে সাময়িক সমঝোতায় পৌঁছেছে ইরান। ইরানের সহযোগিতার ক্ষেত্রে যে অচলাবস্থা দেখা দিতে যাচ্ছিল আপাতত তিন মাসের জন্য তার অবসান ঘটেছে। আইএইএ-এর মহাপরিচালক রাফায়েল গ্রোসির তেহরান সফরে উভয় পক্ষ এ সমঝোতায় মিলিত হয়েছে। আলজাজিরা।

তবে এক্ষেত্রে শর্ত জুড়ে দিয়েছে দেশটি। আইএইএ’র কর্মকর্তারা সীমিত পরিসরে পরিদর্শনের সুযোগ পাবেন এবং কোনো ঝটিকা সফর পরিচালনা করতে পারবেন না। রবিবার উভয় পক্ষের এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক পরিদর্শকরা আগামী তিন মাস ইরানের পরমাণু স্থাপনাগুলোতে ‘জরুরি’ পরিদর্শন কাজ চালিয়ে যেতে পারবেন।

২০২০ সালের ২৬ আগস্ট গ্রোসির আগের বারের তেহরান সফরের সময় আইএইএ’র সঙ্গে ইরানের যে সমঝোতা হয়েছে তার বাস্তবায়ন অব্যাহত থাকবে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইরানের পার্লামেন্টে পাস হওয়া আইনের ভিত্তিতে ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে তেহরান এনপিটি-র সম্পূরক প্রটোকল বাস্তবায়ন স্থগিত রাখবে। এর অর্থ হচ্ছে, আন্তর্জাতিক পরিদর্শকরা পূর্ব ঘোষণা ছাড়া আর ইরানের পরমাণু স্থাপনা পরিদর্শন করতে পারবেন না। তবে ইরান আগের মতো উভয় পক্ষের মধ্যে স্বাক্ষরিত ‘সেফগার্ড এগ্রিমেন্ট’ পুরোপুরি মেনে চলবে।

ইরানের পার্লামেন্ট গত ডিসেম্বরে এ সংক্রান্ত একটি আইন পাস করে। এতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র পরবর্তী দুই মাসের মধ্যে ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না করলে তেহরান সম্পূরক প্রটোকল বাস্তবায়ন স্থগিত রাখবে।

ওই আইনের ভিত্তিতে ইরান গত সপ্তাহে আইএইএ-কে জানিয়ে দেয়, ২১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না হলে ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে তেহরান পূর্ব ঘোষণা ছাড়া আর কোনও পরিদর্শক গ্রহণ করবে না।

ইরানের ওই আল্টিমেটাম হাতে পাওয়ার পর আইএইএ প্রধান রাফায়েল গ্রোসি শনিবার তড়িঘড়ি তেহরান ছুটে যান। শেষ পর্যন্ত তার সফর ফলপ্রসূ হয়েছে বলে জানিয়েছে উভয় পক্ষ।

এ সপ্তাহের শেষে তেহরানের সঙ্গে আলাপ শেষে আইএইএ’র প্রধান রাফায়েল বলেন,‘পরিদর্শনের সুযোগ এখন সীমিত, এটা আমাদের মানতে হবে। তবে এরপরও আমরা প্রয়োজনীয় পর্যবেক্ষণ ও যাচাই করতে সক্ষম হব।’

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

এই সম্পর্কিত আরও খবর...