যুক্তরাজ্যে সেহরিন সেলিম রিপনকে জাতীয় চারনেতা পরিষদের সংবর্ধনা

স্বদেশ বিদেশ ডট কম

  • প্রকাশিত: ১৯ অক্টোবর ২০২২, ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ

ব্রিটিশ রানির ‘এমবিই’ খেতাব অর্জন করায় জাতীয় নেতা বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শহীদ ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলীর দৌহিত্র, আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো. সেলিমের ছেলে শেহরিন সেলিম রিপনকে সংবর্ধনা দিয়েছে জাতীয় চারনেতা পরিষদ যুক্তরাজ্য।

গত ১১অক্টোর মঙ্গলবার পুর্ব লন্ডনের মাইক্রো বিজনেস সেন্টারে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬ঃ৩০মিনিটে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা।
জাতীয় চার নেতা পরিষদের সভাপতি শাহ ফারুক আহমদের সভাপতিত্বে, সাধারন সম্পাদক আব্দুর রহিম শামীম এবং এবং মহিলা সম্পাদক সেলিনা আক্তার জোসনার যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ।

প্রধান অতিথির বক্ত্যবে যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, তার বক্তব্যের শুরুতেই এমবিই খেতাব পাওয়ায় সেহরিন সেলিম রিপনের জন্য এমন সুন্দর একটি সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজনের জন্য জাতীয় চারনেতা পরিষদকে ধন্যবাদ জানান।
তিনি বলেন ভাল কাজের জন্য যখন সন্মাননা দেয়া হয় তখন কাজের গতি আরো বারে।
আমাদের আরো ভাল ভাল কাজ করতে হবে, সবাইকে খবরের কাগজের হেডলাইন না হয়ে মানুষের হৃদয়ের কাগজের হেডলাইন হতে হবে।

রিপন কারো কাছথেকে কোন তকমা নিয়ে সাধারন মানুষের জন্য কাজ করতে যায়নি, সে তার দাদা জাতীয় নেতা শহীদ ক্যাপটেন মনসুর আলীকে দেখেছে তিনি সারাজীবন সাধারন মানুষের পাশে থেকে মানুষের কল্যানে কাজ করেগেছেন, উনি জীবদ্দশায় নিজের জন্য কিছু করে যায়নি। রিপন
তার পারিবারিক অনুপ্রেরনায় ভাল কাজ করছে আর এ ভাল কাজের জন্য বৃটিশ রানী কর্তৃক এমবিই খেতাব পেয়েছে।
তার এই ভাল কাজগুলো বাংলাদেশেও করতে হবে। পারিবারিক ঐতিহ্যের কারনে সবাই তার কাছে ভাল কাজ আশা করে। সে যদি সুযোগ পায় তবে জননেত্রী শেখ হাসিনা একজন নিষ্ঠাবান সৎ দেশপ্রেমিক এবং মানব বান্ধব একটি পিলার আমাদের উপহার দিবে।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগ নেতা ফয়জুল ইসলাম লস্কর, যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ চৌধুরী, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর সালেহ আহমদ সেলিম, লন্ডন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলতাবুর রহমান মুজাহিদ, লন্ডন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আফসার খান সাদেক, যুক্তরাজ্য সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সায়েদ আহমদ সাদ।

এ সময় বক্তারা রাণী দেওয়া এমবিই খেতাব পেয়ে যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশিদের ভাবমূর্তি উজ্বল করার জন্য সেহরিন সেলিম রিপনকে ধন্যবাদ জানান এবং তারা বলেন এই খেতাব পাওয়ার পর আপনার দায়িত্ব আরো বেরে গেছে। আপনার মত পরিক্ষিত যোগ্য নেতা বাংলাদেশে খুব প্রয়োজন, বাংলাদেশের মানুষের প্রয়োজনে আপনাকে রাজনীতিতে থাকতে হবে এবং দেশের মানুষের কল্যানে কাজ করতে হবে।

তাছারা উক্ত অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, যুক্তরাজ্য সেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক ইন্জিনিয়ার শামসুল আলম বাচ্চু, যুক্তরাজ্য প্রজন্ম ৭১ এর আহ্বায়ক শহীদ সন্তান বাবুল হোসেন, যুক্তরাজ্য শ্রমিকলীগের সহ সভাপতি শামীম আহমদ, সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তফা কামাল মিলন, আফজল হোসেন রানা, আহমদ হোসেন চৌধুরী নাজিম, আহমদ আলী, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, খালেদ আহমদ জয়, মিজান রহমান, আসমা আলম, গাজী আব্দুর রব, আসমা আলম, মুজিবুল হক মনি, আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা, জলিল চৌধুরি, সাদেক কোরেশী, আতিয়ার রসুল শিকদার কিটন, লিটন আহমদ, শেখ দবির মিয়া, আজিজুল হক, হাসান ইমাম, আসুক আহমদ, খোকন হায়দার, শামীম উদ্দীন, রুমা জাফর, রুচি আনচা, আলী হোসেন চৌধুরী, জুবায়ের রশিদ, আলফু মিয়া প্রমুখ।

সংবর্ধিত অতিথি সেহরিন সেলিম রিপন তার বক্তব্যে বলেন, আজকের এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আপনাদের সকলের বক্তব্য আমার হৃদয়কে স্পর্শ করেছে। এমন একটি অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। যে এমবিই খেতাবের জন্য আপনারা আমাকে সংবর্ধনা দিচ্ছেন তা আমার কাছে ছিল বিস্ময়কর ব্যাপার। আমি খেতাব পাওয়ার জন্য সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের সহযোগিতার হাত বারাইনি, সাধারন মানুষের পাশে থেকে সেবা করে যাওয়া এটা আমার পারিবারিক ঐতিহ্য।
আমার সেবামুলক কাজের অনুপ্রেরনা ছিল জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং জাতীয় চার নেতা। জীবন বাজি রেখে তারা বাংলাদেশ স্বাধীন করেছেন এবং বাংলাদেশি হিসেবে বিশ্বের বুকে আমাদের একটা পরিচয় সৃষ্টি করেছেন। এমবিই খেতাব পেয়ে আমি বাংলাদেশি পরিচয়টাকে আরো উজ্বল করতে পেরেছি এতেই আমি অনেক খুশি। একজন বাঙ্গালী হিসেবে রাণীর কাছ থেকে এমন খেতাব পাওয়া আমার জন্য অনেক বর পাওয়া কারন অনেক ত্যাগের বিনিময়ে আমারা বাঙ্গালীরা স্বাধীন হয়েছি। এই খেতাবটি আমার কাছে অনেক সামান্য, আমার মনে হয় আমাদের প্রত্যেকেরই দায়িত্ব আমরা যেন আমাদের বাঙ্গালী পরিচয়টাকে বিশ্বের দরবারে আরো উজ্বল করতে পারি। আমাদের অভিভাবক মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে তার কাজের মাধ্যমে আমাদের দেশ এবং বাঙ্গালী জাতির ভাবমূর্তি উজ্বল করছে, এবং বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে বিশেষ মর্যাদায় উন্নীত করছেন তা আমাদের বাঙ্গালীদের জন্য বিশাল অর্জন।

আলোচনা সভা শেষে, আনুষ্ঠানের আমন্ত্রিত অতিথিরা সেহরিন সেলিম রিপনকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানায় এবং তার হাতে সংবর্ধনা ক্রেষ্ট তুলে দেন।পরে জাতীয় চারনেতা পরিষদের সভাপতি শাহ ফারুক আহমেদ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

উল্লেখ্য, সেহরিন সেলিম রিপন বাংলাদেশের রাজনীতিতেও সক্রিয় আছেন। সম্প্রতি তিনি ব্রিটেনের রাণী প্রদত্ত এমবিই খেতাব পাওয়ার পর থেকে তাকে নিয়ে আওয়ামী রাজনীতিতে জোর সোরে আলোচনা শুরু হয়েছে। জাতীয় চারনেতার পরিবার থেকে তাকে দলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে আনা হতে পারে বলেও গুন্জন শুনা যাচ্ছে।

এই সম্পর্কিত আরও খবর...