প্যারিসে বঙ্গবন্ধুর স্মারক ডাক টিকিট অবমুক্ত

স্বদেশ বিদেশ ডট কম

  • প্রকাশিত: ১৩ জুলাই ২০২১, ২:২১ অপরাহ্ণ

ডাক টিকিট অবমুক্ত অনুষ্ঠানে ফরাসি ডাক বিভাগের টিকিট প্রকাশনা বিভাগ পিলাপোস্টের পরিচালক গিলিস লিচিটিজ ও ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ দূতাবাস প্যারিসের উদ্যোগে ও ফরাসি ডাক বিভাগ লা পোস্টের সহায়তায় স্মারক ডাক টিকিট অবমুক্ত করা হয়েছে।

লা পোস্টের সদর দপ্তরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ফরাসি ডাক বিভাগের টিকিট প্রকাশনা বিভাগ পিলাপোস্টের পরিচালক গিলিস লিচিটিজ এবং ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন যৌথভাবে সোমবার এ স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করেন।

প্যারিসের বাংলাদেশ দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কভিড-১৯ মহামারির কারণে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে আয়োজনে দূতাবাসের সব কর্মকর্তা ও পিলাপোস্টের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং প্রবাসী বাংলাদেশি প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন শুভেচ্ছা বক্তব্যের শুরুতেই বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, বঙ্গবন্ধু আজীবন সারা বিশ্বের নির্যাতিত, নিপীড়িত মানুষের পক্ষে তাদের অধিকার আদায়ের দাবিতে সোচ্চার ছিলেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে তার রাজনৈতিক আদর্শ, জীবন দর্শন সারা বিশ্বের স্বাধীনতাকামী জনগোষ্ঠির কাছে পৌঁছে দিতে দূতাবাসের চলমান উদ্যোগের এটি অন্যতম।

এ প্রকাশনা জাতির পিতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন। রাষ্ট্রদূত এই প্রকাশনায় সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

পিলাপোস্টের পরিচালক গিলিস লিচিটিজ বলেন, তিনি এ মহৎ উদ্যোগের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হতে পেরে গর্বিত। এ কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত হওয়ায় তারাও বঙ্গবন্ধুর মতো একজন মহান ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে, তার জীবনাদর্শ সম্পর্কে বিশদভাবে জানতে পেরেছেন। এ ডাক টিকিট ফরাসি জনগণের কাছে বাংলাদেশের জাতির পিতাকে আরও সুপরিচিত করতে একটি বিশেষ ভূমিকা রাখবে।

তিনি বলেন, এটি কেবল স্মারক নয়, নিত্য ব্যবহার্য ডাক টিকিট। এর মাধ্যমে ফ্রান্সের অভ্যন্তরে ও বিশ্বের যে কোনো দেশে চিঠি বা পার্সেল প্রেরণ করা যাবে।

বিখ্যাত বাংলাদেশি চিত্রশিল্পী শামসুদ্দোহারের আঁকা বঙ্গবন্ধুর একটি প্রতিকৃতি এই স্মারক ডাক টিকিটে ব্যবহার করা হয়।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় অংশে রাষ্ট্রদূত লা পোস্টকে ডাক টিকিটের একটি রেপ্লিকা উপহার হিসেবে দেন, যা লা পোস্টের সদর দপ্তরে প্রদর্শন ও সংরক্ষণ করা হয়। এ ছাড়া বঙ্গবন্ধুর লেখা ‘কারাগারের রোজনামচা’র ফরাসি সংস্করণ ‘জার্নাল ডি প্রিজন’ এবং জাতিসংঘের সকল দাপ্তরিক ভাষা ও বাংলায় বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের সংকলন ‘দ্য হিস্টরিক সেভেনথ মার্চ স্পিচ অব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, আ ওয়ার্ল্ড ডকুমেন্টারি হেরিটেজ’ শীর্ষক বই দুটি লা পোস্টকে উপহার হিসেবে দেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই সম্পর্কিত আরও খবর...