সিলেট মুসলিম সেন্টারের বিশিষ্টজনদের নিয়ে মতবিনিময় সভা

স্বদেশ বিদেশ ডট কম

  • প্রকাশিত: ১০ জানুয়ারি ২০২২, ৫:৫৯ পূর্বাহ্ণ

বাংলাভাষীদের কাছে কুরআনের দাওয়াত পৌঁছিয়ে দিতে
শফিকুর রহমান মাদানীর তরজমা গ্রন্থটি অগ্রণী ভূমিকা রাখছে

আল্লাহ তায়া’লার কথামালার অসামান্য ভাণ্ডার মহাগ্রন্থ আল-কুরআনুল কারিম। এ মহাগ্রন্থের আলোচ্য বিষয় হচ্ছে মানুষ। মানুষকে নিয়েই পবিত্র কুরআনুল কারিমের যত আলোচনা। মানুষের জীবন পরিচালনার একমাত্র মহাগ্রন্থও আল-কুরআনুল কারিম। আর এ কারণেই মহাগ্রন্থ আল-কুরআনের শ্রেষ্ঠত্ব ও গ্রহণযোগ্যতা অপ্রতিদ্বন্দ্বি। পৃথিবীতে যত আসমানি কিতাব নাজিল হয়েছে, তার প্রায় সবগুলোই অনুসারিরা নিজেদের প্রয়োজনে পরিবর্তন পরিবর্ধন করেছে। যা অবিকৃত নয়। আর মহাগ্রন্থ আল-কুরআনের শ্রেষ্ঠত্ব হলো আল্লাহর রহমতে তা আজো অবিকৃত অবস্থায় বিদ্যমান। কিয়ামত পর্যন্ত আল্লাহ তায়া’লা স্বয়ং তা হেফাজত করবেন। দুনিয়াতে শান্তি এবং পরকালীন মুক্তির জন্য আল কুরআনই একমাত্র জীবনব্যবস্থা। আল কুরআনের সঠিক অনুসরণ যেমনই দুনিয়াতে মান-মর্যাদার উৎস, তেমনই এটা মুসলিম সভ্যতার উত্থানে একমাত্র পাথেয়। তাই মুসলিমদেরকে এ কুরআনের জীবনবিধানকেই আঁকড়ে ধরতে হবে। বিশ্বের বাংলাভাষী মানুষের কাছে আল কুরআনের দাওয়াত পৌঁছিয়ে দেওয়ার জন্য শায়খ এইচ এম শফিকুর রহমান আল মাদানী অনূদিত ‘আল কুরআনুল কারিম’ তরজমা গ্রন্থটি অগ্রণী ভূমিকা রাখছে।

সিলেট মুসলিম সেন্টার-এর আয়োজনে যুক্তরাজ্যের বরেণ্য আলেমে দ্বীন ও খ্যাতিমান গবেষক শায়খ এইচ এম শফিকুর রহমান আল মাদানী অনূদিত সহজ বাংলায় কুরআনে কারিমের তরজমা ‘আল কুরআনুল কারিম’ গ্রন্থটির তৃতীয় সংস্করণ প্রকাশের লক্ষ্যে সুধী ও আলেমসমাজকে নিয়ে আয়োজিত মতবিনিময় সভা ও নৈশভোজ অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।

সিলেট মুসলিম সেন্টার-এর সভাপতি ও দৈনিক জালালাবাদ পত্রিকার সম্পাদক মুকতাবিস-উন-নূর এর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভা ৮ জানুয়ারি ২০২২ খ্রিস্টাব্দের শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় নগরীর পূর্ব জিন্দাবাজারস্থ ‘হোটেল গোল্ডেন সিটি’র তৃতীয় তলায় কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত হয়।

বিশিষ্ট কুরআন গবেষক, লেখক ও ব্যাংকার মুন্সি আব্দুল কাদির এর স্বাগত বক্তব্যে শুরু হওয়া মতবিনিময় সভায় সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেটের বরেণ্য আলেমে দ্বীন শায়খ ইসহাক আল মাদানী, প্রিন্সিপাল কবি কালাম আজাদ, সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মোঃ নজরুল হক চৌধুরী, এন.ডি.এফ সিলেটের সভাপতি- ডা. এম, এ হাশেম চৌধুরী, গোবিন্দগঞ্জ ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ শায়খ আব্দুস্ সালাম আল-মাদানী, ড. মুহাম্মদ এনামুল হক চৌধুরী আল-মাদানী, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমাম ও খতিব শায়খ মুহাম্মদ মতিউর রহমান, কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব সাঈদ বিন নূরুজ্জামান আল-মাদানী, কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের কার্যকরি কমিটির সদস্য কবি, প্রাবন্ধিক ও কলামিস্ট বেলাল আহমদ চৌধুরী, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক ইকবাল মাহমুদ, মোঃ রাকিব উদ্দিন মাদানী, যুক্তরাজ্যের দারুল উম্মাহ’র শিক্ষক শাহ রেদওয়ানুর রহমান, মাওলানা আব্দুল মালিক। সিলেট মুসলিম সেন্টার এর পরিচিতি তুলে ধরেন সেন্টারের সেক্রেটারি- লেখক ও প্রকাশক বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল।

আবৃত্তি শিল্পী আবু জাফর মোহাম্মদ সালেহ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ড. মোঃ তুতিউর রহমান, কবি ও সাংবাদিক নজমুল ইসলাম মকবুল, কবি ও শিক্ষাবিদ মোঃ আনোয়ার হোসাইন, শাবিপ্রবি’র সহকারি রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ মঈনুল হক, শাবিপ্রবি’র উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ আবু ইউসুফ, বাংলাদেশ বিমানের সাবেক কর্মকর্তা এ. কে. এম. আব্দুর রহমান, মুফতি মোস্তফা সোহেল হিলালী, মোঃ আব্দুল লতিফ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, সিলেট মুসলিম সেন্টার, ইউকের সহযোগিতায় প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন ও কুরআন গবেষক শায়খ এইচ এম শফিকুর রহমান আল মাদানী অনূদিত আল কুরআনুল কারিমের সহজ তরজমা ‘আল কুরআনুল কারিম’ গ্রন্থটির প্রথম ও দ্বিতীয় সংস্করণ প্রকাশিত হয়েছে। এ তরজমা গ্রন্থটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত বাংলাভাষী অন্তত আট হাজারেরও বেশি মানুষের কাছে তুলে দেওয়া হয়েছে। গ্রন্থটির প্রথম ও দ্বিতীয় সংস্করণ শেষ হওয়াতে তৃতীয় সংস্করণ প্রকাশ হওয়া আবশ্যিক হয়ে পড়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই সম্পর্কিত আরও খবর...