চট্রগ্রাম টেস্ট : আশা নিয়ে শেষ দিনের অপেক্ষা

স্পোর্টস ডেস্ক

  • প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২২, ৪:২২ পূর্বাহ্ণ

জোড়া সেঞ্চুরিতে বড় রানের পুঁজি পেয়েছে বাংলাদেশ। ৬৮ রানের লিড নিয়ে বুধবার দিনের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কাকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে পাঠিয়েছে বাংলাদেশ। সবমিলে এই টেস্টের ভবিষ্যৎ অনেকটা ড্রয়ের দিকেই গড়াচ্ছে।
আজ বৃহস্পতিবার টেস্টের শেষ দিনে শ্রীলঙ্কাকে দ্রæত থামিয়ে রান মোকাবিলা করতে পারলেই কেবল জয়ের দেখা পেতে পারে বাংলাদেশ। নয়তো ম্যাচের ভাগ্য গড়াবে নিষ্প্রাণ ড্রয়ের দিকে।

কাল দিনের শেষ দিকে ব্যাট করতে নেমে ২ উইকেটে ৩৯ রান নিয়ে দিন শেষ করেছে শ্রীলঙ্কা। ২৯ রানে পিছিয়ে থেকে আজ টেস্টের পঞ্চম দিন শুরু করবে সফরকারীরা।
বুধবার নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৪৬৫ রান নিয়ে থেমেছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার ৩৯৭ রান টপকে প্রথম ইনিংসে ৬৮ রানের লিড পায় মুমিনুল হকের দল।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ১৩৩ রান করেছেন তামিম ইকবাল। ২১৮ বলে তাঁর ইনিংসটি সাজানো ছিল ১৫টি বাউন্ডারি দিয়ে। আরেক সেঞ্চুরিয়ান মুশফিক করেছেন ২৮২ বলে ১০৫ রান।
৩১৮ রান নিয়ে কাল টেস্টের চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করে বাংলাদেশ। লিটন ও মুশফিকের শতরানের জুটিতে দিনের প্রথম সেশনেই সেই রান সাড়ে তিনশ ছাড়ায়। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে লিটন ও মুশফিক দুজনেই সেঞ্চুরির আশা জাগান। কিন্তু লাঞ্চ বিরতির পর কিছুটা মনোযোগ হারান লিটন। বিরতি থেকে ফিরেই উইকেট হারান। ৮৮ রানে থামে তাঁর ইনিংস। ১৮৯ বলে ১০ বাউন্ডারিতে সাজানো তাঁর ইনিংসটি।

লিটন বিদায় নেওয়ার পর সাকিবকে নিয়ে বাংলাদেশকে লিডের পথে নিয়ে যান মুশফিকুর রহিম। দলীয় রান ৪০০ পেরিয়ে তিনিও তুলে নেন সেঞ্চুরি। কাল দিনের দ্বিতীয় সেশনে সেঞ্চুরি স্পর্শ করেছেন মুশফিক। লঙ্কান বোলার ফার্নান্দোর বলে বাউন্ডারি মেরে শতক তুলে নেন তিনি। সেঞ্চুরি করতে মুশফিক খেলেছেন ২৭০টি বল। শতকটি সাজানো ছিল চারটি বাউন্ডারি দিয়ে।
শুধু তাই নয়,সেঞ্চুরির পাশাপাশি আরেকটি মাইলফলকে পা রেখেছেন মুশফিক। দিনের প্রথম ঘণ্টায় বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে ৫ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন অভিজ্ঞ এই ব্যাটার।
শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ব্যাক্তিগত ৫৩ রান নিয়ে বুধবার টেস্টের চতুর্থ দিন শুরু করেন মুশফিক। চতুর্থ দিন স্রেফ ১৫ রান দূরে থেকে দিন শুরু করে তিনি। মাঠে নামার পর ছুঁয়ে ফেলেন ৫ হাজার রানের মাইলফলক। তবে সেঞ্চুরির পর নিজের ইনিংস বেশি বড় করতে পারেননি। ১০৫ বলেই থেমে যায় তাঁর ইনিংস। মুশফিক ফিরলে শেষ দিকে নাঈম-তাইজুলদের ব্যাটে ৪৬৫ রান করে থামে বাংলাদেশ।
এর আগে তামিমের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নেমে হাফসেঞ্চুরি করেন তরুণ ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয়। ১৪২ বলে ৯ বাউন্ডারিতে ৫৮ রান করেন তিনি। এ ছাড়া সাকিব আল হাসান ৪৪ বলে ২৬ রান। নাঈমের ব্যাট থেকে আসে ৫৩ বলে ৯ রান।
তার আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ইনিংসে স্কোরবোর্ডে ৩৯৭ রান তুলেছে শ্রীলঙ্কা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ রান করা ম্যাথুজ খেলেছেন ১৯৯ রানের ইনিংস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস : ১৫৩ ওভারে ৩৯৭/১০ (ফার্নান্দো ৩৬, করুনারতেœ ৯, মেন্ডিস ৫৪, সিলভা ৬, ম্যাথুজ ১৯৯ , চান্দিমাল ৬৬, ডিকভেলা ৩, মেন্ডিস ১, এম্বুলদেনিয়া ০, বিশ্ব ১৭, ;সাকিব ৩৯-১২-৬০-৩,নাঈম ৩০-৪-১০৫-৬,তাইজুল ৪৮-১২-১০৭-১ , শরিফুল ২০-৩-৫৫-০,খালেদ ১৬-১-৬৬-০)।

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস : ১৭০.১ ওভারে ৪৬৫/১০ (তামিম ১৩৩, মাহমুদুল ৫৮, মুমিনুল ২, শান্ত ১, মুশফিক ১০৫, লিটন ৮৮, নাঈম ৯, সাকিব ২৬, তাইজুল ২০, খালেদ ০, শরিফুল৩ ;বিশ্ব ৮-০-৪২-০, ফার্নান্দো ২৬-৪-৭২-৩, মেন্ডিস ৪৫-১০-৪৫-০,এম্বুলদেনিয়া ৪৭-৯-১০৪-১, ডি সিলভা ১৯-২-৪৮-১,কাসুন ২৪.১-৬-৬০-৪)।
শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ইনিংস : ১৭.১ ওভারে ৩৯/২ (ফার্নান্দো ১৯, করুনারতেœ ১৮* লাসিথ ২ ; তাইজুল ১.১-১-০-১, নাঈম ৯-৩-২১-০, সাকিব ৬-৩১২-০)।

এই সম্পর্কিত আরও খবর...