দুই মেয়েকে নিয়ে নদীতে ঝাঁপ দিলেন মা

স্বদেশ বিদেশ ডট কম

  • প্রকাশিত: ১৯ জুন ২০২২, ৭:১৪ অপরাহ্ণ

গাজীপুরের কাপাসিয়ার সিংহশ্রী এলাকায় এক মা তার দুই শিশু সন্তানকে নিয়ে শীতলক্ষ্যা নদীতে ঝাঁপ দেন। এ সময় স্থানীয়রা এক শিশুকে উদ্ধার করলেও বাকি দুইজনের কোনো খোঁজ মেলেনি। তাদের উদ্ধারে স্থানীয়রা চেষ্টা করছে।

রোবববার বেলা ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। উদ্ধার হওয়া শিশুর নাম তাহমিদা আক্তার (৯)। নিখোঁজ দুইজন হলেন মা আরিফা আক্তার (৪০) ও মেয়ে মুর্শিদা আক্তার (৭)।

আরিফা আক্তার কাপাসিয়া উপজেলার বিবাদীয়া গ্রামের মোহাম্মদ আলী মুন্সির মেয়ে এবং গ্রামের মৃত আব্দুল মালেকের স্ত্রী।

নিখোঁজ নারীর স্বজনদের বরাত দিয়ে কাপাসিয়া থানার ওসি এএসএম নাসিম জানান, ছয় বছর আগে আরিফার পরিবারের উপার্জনক্ষম একমাত্র ব্যক্তি স্বামী আব্দুল মালেক মারা যান। এরপর থেকেই অনেকটা অসহায় হয়ে পড়েন তিনি এবং দুই মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়িতেই বসবাস করেন। ধীরে ধীরে মানসিক সমস্যায়ও পড়েন আরিফা। তাকে মানসিক রোগের চিকিৎসাও দেয়া হচ্ছে। শীতলক্ষ্যা নদীতে এখন স্রোত বেশি এবং পানিও বেড়েছে। মা তার দুই মেয়েকে নিয়ে নদীর পার থেকে হঠাৎ ঝাঁপ দেয়ার পর একজনকে এলাকাবাসী উদ্ধার করতে পারলেও অপর দুইজন দ্রোতের টানে কোথায় চলে গেছে এখনও তাদের সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না।

উদ্ধার হওয়া শিশু তাহমিদার ভাষ্য, তাদের দুই বোনকে জামা ও জুতো কিনে দেয়ার কথা বলে তার মা তাদের বাড়ি থেকে স্থানীয় সিংহশ্রী বাজারে নিয়ে আসেন। পরে নদীর কিনারায় এনে তাদের নিয়ে ঝাঁপ দেন।

কাপাসিয়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার ছাবেদ আলী খান বলেন, এ ঘটনায় দুইজন নিখোঁজ রয়েছে। উদ্ধার হওয়া শিশুটিকে তাদের জিম্মায় রাখা হয়েছে। টঙ্গীর ডুবরিদলকে খবর দেয়া দিয়েছেন। তারা আসলে উদ্ধার অভিযান শুরু হবে।

এই সম্পর্কিত আরও খবর...