প্রাণে বাঁচতে ভাসমান শহর বানাচ্ছে মালদ্বীপ

স্বদেশ বিদেশ ডট কম

  • প্রকাশিত: ২১ জুন ২০২২, ১:৪০ অপরাহ্ণ

প্রতিনিয়ত বাড়ছে সমুদ্রের পানির স্তর। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপের বিপদও। তাই ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে সমুদ্রের মধ্যে একটি ভাসমান শহর গড়ে তোলার পরিকল্পনা নিয়েছে দেশটির সরকার। রাজধানী মালে থেকে মাত্র ১০ মিনিটের দূরত্বে একটি কৃত্রিম লেগুনের মাঝে গড়ে উঠছে সেই শহর।

একটি ডাচ নির্মাণ সংস্থা ও মালদ্বীপ সরকারের যৌথ প্রচেষ্টায় গড়ে উঠছে নতুন এই শহর। শহরটি বানাতে প্রায় ৫০০০টি ভাসমান কৃত্রিম দ্বীপ তৈরি করা হচ্ছে। এই কৃত্রিম দ্বীপগুলোর ওপর আবাসন, রেস্তোরাঁ, হাসপাতাল থেকে দোকানপাট ও স্কুল— থাকছে সবই। পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে এই শহরে থাকতে পারবেন প্রায় ২০ হাজার মানুষ।

মালদ্বীপ প্রশাসনের আশা, ২০২৭ সালের মধ্যে সম্পূর্ণ হয়ে যাবে গোটা প্রকল্পটিই। তবে তার আগেই ২০২৪ সালে আংশিকভাবে বসবাসের জন্য খুলে দেওয়া হতে পারে শহরের একটি বড় অংশ।

১১৯০টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত মালদ্বীপের মোট ভূ-ভাগের ৮০ শতাংশেরই গড় উচ্চতা সমুদ্রপৃষ্ঠের থেকে মিটার খানেকের মধ্যে। ফলে বিশ্ব উষ্ণায়ন ও সমুদ্রের জলস্তরের উচ্চতা বেড়ে গেলে সমূহ বিপদ দেখা দিতে পারে ছোট্ট এ দ্বীপরাষ্ট্রে।

পরিবেশবিদদের আশঙ্কা, এভাবে জলস্তর বাড়তে থাকলে এ শতাব্দীর শেষে ডুবে যেতে পারে গোটা দেশটাই। তাই ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখেই এ শহর নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে মালদ্বীপ সরকার।

এই সম্পর্কিত আরও খবর...