হাতে-মাথায় ব্যান্ডেজ নিয়ে সমাবেশে আসেন তাবিথ আউয়াল

স্বদেশ বিদেশ ডট কম

  • প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ৬:৫৩ অপরাহ্ণ

হাতে ও মাথায় ব্যান্ডেজ নিয়ে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে সমাবেশে যোগ দেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। তাকে দেখে স্লোগানে ফেটে পড়েন সমাবেশের নেতাকর্মী।

সোমবার রাজধানীর মহাখালীর গাউসুল আজম জামেমসজিদ সংলগ্ন ময়দানে বিএনপির এ সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়। বেলা তিনটায় সমাবেশ শুরু হলে সাড়ে ৩টার দিকে সমাবেশে আসেন তাবিথ আউয়াল। তখন তার হাতে ও মাথায় ব্যান্ডেজ দেখা যায় এবং তাকে কিছুটা খুঁড়িয়ে হাঁটতে দেখা যায়।

এর আগে গত শনিবার সন্ধ্যার পর বনানীতে আওয়ামী লীগের হামলার শিকার হন তাবিথ আউয়াল। এতে মাথায় গুরুত্ব আঘাত পান তিনি। পরে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয় বিএনপির বিদেশ বিষয়ক কমিটির এই সদস্য।

সমাবেশে তাবিথ আউয়াল বলেন, ‘আমাদের যাতই মাথা ফাঁটুক, হাত ভাঙ্গুক বিএনপির প্রতিটি কর্মী মাঠে আছে, থাকবে। যতক্ষণ না এই সরকারকে সরিয়ে নতুন বাংলাদেশ গড়ে তুলব ততক্ষণ আমরা কেউ যুদ্ধের ময়দান থেকে সরবো না। কোনো কিছু অর্জন করতে হলে ত্যাগ করতে হয়। ত্যাগ ছাড়া কোনো কিছু অর্জন করা যায় না। আমি ত্যাগ- বিসর্জন করতে রাজি আছি। আমি আশা করি আমরা সবাই প্রস্তুত আছি।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহবায়ক আমানউল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব আমিনুল হকের সঞ্চলনায় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহামুদ চৌধুরী, দক্ষিণের আহ্বায়ক আব্দুস সালাম সহ নানা পর্যায়ের নেতাকর্মী।

গত ১০ সেপ্টেম্বর থেকে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের ১৬ স্থানে টানা সমাবেশ করছে বিএনপি। ১৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৭টি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে তিনটি সমাবেশে হামলার ঘটনা ঘটে।জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি, লোডশেডিং, গণ-পরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি, পুলিশের গুলিতে নারায়ণগঞ্জে যুবদলের শাওন এবং ভোলায় ছাত্রলীগ নেতা নূরে আলম ও স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আব্দুর রহিমের হত্যার প্রতিবাদে সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নেয় দলটি।

এই সম্পর্কিত আরও খবর...