ফুল ফ্রি স্কলারশিপ নিয়ে হার্বার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশি তানভীর

স্বদেশ বিদেশ ডট কম

  • প্রকাশিত: ৩ অক্টোবর ২০২২, ৫:৪৯ অপরাহ্ণ

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় মার্কিন যুক্তরাষ্টের উচ্চশিক্ষার প্রাচীনতম প্রতিষ্ঠান এবং বিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ প্রতিষ্ঠানগুলির মধ্যে অন্যতম। হার্বার্ডে শিক্ষাগ্রহনের সপ্ন সবার থাকলেও সবার পক্ষে সে সপ্ন পুর্ন করা সম্ভব হয়না।তবে এ বছর ফুল ফ্রি স্কলারশিপ নিয়ে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার স্বপ্ন পুর্ন হল বাংলাদেশি মেধাবি ছাত্র তানভীর আহমেদ রাজুর।
তানভীর আহমেদ রাজু “ সান্টান্ডার স্কলারশিপ স্কিল বিসনেস ফর অল- হার্ভার্ড বিসনেস পাবলিসিং” এর জন্য আবেদন করলে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় তার আবেদন গ্রহন করেছে।

তানভীর আহমেদ রাজুর বাড়ি বাংলাদেশে সিলেট হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার কালিকা পুরে।তার বাবা তাছাদ্দুক আহমেদ এবং মা মাহমুদুন নেছা দুজনেই কলেজে অধ্যাপনা করছেন। তানভীরের দুই ভাইয়ের মধ্যে তানভীর বড় এবং তার ছোট ভাই তাহভীর অহমেদ শাহজালাল কলেজের এইচ এস সি পরিক্ষার্থী।

তানভীর গোবন্দপুর সরকারী উচ্চবিদ্যালয় থেকে এস এস সি এবং বি এ এফ শাহীন কলেজ, তেজগাঁও থেকে এইচ এস সি পাস করে। ২০১৭ সালে সে উচ্চ শিক্ষার জন্য লন্ডনের কুইন মেরি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএসসি ( অনার্স) ইন কম্পিউটার সাইন্স এ পরতে আসে। এ বছর সে লন্ডনের কুইন মেরি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সফল ভাবে মেরিট মার্ক নিয়ে বিএসসি অনার্স ইন কম্পিউটার সাইন্স ডিগ্রি অর্জন করেছে। অনার্স ডিগ্রি শেষ করে যুক্তরাজ্যে চাকরির আবেদনের পাশাপাশি তানভির “সান্টান্ডার স্কলারশিপ স্কিল বিসনেস ফর অল- হার্ভার্ড বিসনেস পাবলিসিং এর জন্য আবেদন করে। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় কয়েক ধাপে তার এসেসমেন্ট শেষে করে গত ২৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার এক ইমেই বার্তার মাধ্যমে তার স্কলারশিপ নিশ্চিত করেছে।

তানভীর জানায়, হার্ভার্ডের মত মর্যাদাপুর্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপ নিয়ে পরাশোনা করা আমার জন্য অনেক সৌভাগ্যের। আমার পরিবার, শিক্ষক এবং বন্ধুদের সহযোগিতা দোয়া ও ভালবাসার জন্য আমি এ পর্যন্ত আসতে পেরেছি তাই আমি তাদের প্রত্যেককে ধন্যবাদ দিতে চাই।
তানভীর আরো জানায়, কুইন মেরি বিশ্ববিদ্যালয়ে আমার অনার্স শেষ বর্ষে যখন “আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্স” নিয়ে পরাশোনা করছিলাম তখন “বিসনেস এন্ড ইনভেষ্টমেন্ট সেক্টরে” কিভাবে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যাবহার করা যায় তা নিয়ে আমার কাজ করার আগ্রহ জন্মায়। তখন থেকে আমি কম্পিউটার সাইন্স এর পাশাপাশি ফাইনেন্স এর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পরাশোনা শুরু করি। ফাইনেন্স রিলেটেড বিভিন্ন কোর্স করতে গিয়ে আমি এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করি এবং কয়েক ধাপের এসেসমেন্টে শেষে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যায় আমার আবেদন গ্রহন করে।

উল্লেখ্য, ফ্রাঙ্কলিন ডি রুজভেল্ট, হেনরি কিসিন্জার, বারাক ওবামা, বিল গেটস, জন এফ কেনেডি, টি এস ইলিওট কিংবা মার্ক জাকারবারগ সহ এমন অন্তত শতাধিক দুনিয়া পাল্টে দেয়া মানুষের নাম বলতে গেলে যে বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম আসে তা হল হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়। আমেরিকার ৮জন প্রেসিডেন্ট এ বিশ্ব বিদ্যালয়ে পরাশোনা করেছেন। বর্তমানে পৃথিবীর অন্তত ৬২ জন বিলিনিয়ার এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তাছারা ১৫৮ জন নোবেল বিজয়ী, ১০ জন অস্কার, ৪৮ জন পুলিৎজার পুরস্কার, ১০৮ জন অলিম্পিক মেডেল বিজয়ীর নাম রয়েছে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র/ ছাত্রীদের তালিকায়।

এই সম্পর্কিত আরও খবর...